বগুড়ায় সন্ত্রাসী হামলায় সাংবাদিক মাহফুজ মন্ডল গুরুতর আহত পুলিশি তৎপরতায় ৯ জন গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার ঃ প্রকাশ্য দিবালোকে বগুড়া রেলওয়ে ষ্টেশন চত্বরে সংঘবদ্ধ পকেটমার ও ছিনতাইকারী চক্রের বেদম প্রহারে গুরুতর আহতাবস্থায় দৈনিক ইনকিলাব ও ইনডিপেনডেন্ট পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার মাহফুজ মন্ডল শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল হাসপাতালের জরুরী বিভাগে চিকিৎসাধীন রয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শীদের সুত্রে জানা গেছে, গতকাল বিকাল ৩টা নাগাদ সাংবাদিক মাহফুজ মন্ডল ও রবিউল ইসলাম নামে অপর এক সাংবাদিক পেশাগত প্রয়োজনে বগুড়া রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ি যায়।

অতঃপর ফাঁড়ি থেকে বের হবার ২০ গজ দূরবর্তী স্থানে সঞ্জয়া ও বাবলা নামে দুই পকেটমার সন্ত্রাসীর নেতৃত্বে ৮/৯ জনের সংঘবদ্ধ চক্র মাহফুজ মন্ডলকে ঘিরে ফেলে কোন কিছু বুঝে উঠার পূর্বে বেদম প্রহার করে। এসময় ভীত সন্ত্রস্ত্র অপর সাংবাদিক রবিউল দৌড় দিয়ে পুলিশ ফাঁড়ীতে আশ্রয় নেয়। পরে জিআরপি ফাঁড়ির ইনচার্জ এস আই হারুন ঘটনাস্থলে এসে গুরুতর আহত মাহফুজকে সিএনজিতে করে শজিমেকে প্রেরণ করে।

এদিকে এঘটনা জানতে পেরে সাংবাদিক ইউনিয়ন বগুড়ার নেতৃবৃন্দ তাৎক্ষনিক শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরী বিভাগে ছুটে যান। শজিমেকে থেকেই সাংবাদিক ইউনিয়ন বগুড়ার সভাপতি সৈয়দ ফজলে রাব্বী ডলার মুঠোফোনে পুলিশ সুপার আসাদুজ্জামানকে জানালে তাৎক্ষনিক ভাবে তিনি শজিমেক হাসপাতালের জরুরী বিভাগে যান এবং বেশ কিছু সময় আহত সাংবাদিক মাহফুজের পার্শ্বে অবস্থান পূর্বক তার চিকিৎসার খোঁজখবর নেন। এসময় তার সাথে ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আরিফুর রহমান মন্ডল, ডিবি ওসি আমিরুল ইসলাম। পাশাপাশি তিনি তাৎক্ষনিকভাবে ঘটনায় জড়িত ছিনতাই-পকেটমার চক্রকে গ্রেফতারে জেলা পুলিশকে নির্দেশ প্রদান করেন।

ফলশ্র“তিতে পুলিশ সুপারের নির্দেশে দ্রুত অভিযানে নামে বগুড়া সদর থানা ও সদর ফাঁড়ির পুলিশ। এর প্রেক্ষিতে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা নাগাদ পকেটমার চক্রের নেতা সজ্জিব ও বাবলাসহ চক্রের ৯ সদস্যকে ছুরি ওসামুরাইসহ আটক করে পুলিশ। অভিযানে নেতৃত্ব দেন সদর ফাঁড়ির টিএসআই মঞ্জুরুল হক ভূইয়া। এছাড়াও অভিযানে ছিলেন, সদর থানা পুলিশের সেকেন্ড অফিসার এস আই আসলাম আলী, এস আই রাজ্জাক, এস আই জুলহাজ এসআই মোন্নাফসহ অন্যান্য পুলিশ কর্মকর্তা। এদিকে সাংবাদিক ইউনিয়ন বগুড়ার যুগ্ম সম্পাদক মাহফুজ মন্ডলের উপর হামলার ঘটনায় জড়িত পকেটমার ছিনতাইকারী চক্রের সদস্যদের সশস্ত্র অবস্থায় অতিদ্রুত আটক করায় পুলিশ সুপার আসাদুজ্জামানসহ জেলা পুলিশ বিভাগকে ধন্যবাদ জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন সাংবাদিক ইউনিয়ন বগুড়ার সভাপতি সৈয়দ ফজলে রাব্বী ডলার ও সাধারণ সম্পাদক এম আর সাইন।

Please follow and like us:
Pin Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this:

Website Design, Developed & Hosted by ALL IT BD