পুলিশের নির্যাতনের পর কারাগারে হাজতির মৃত্যুর অভিযোগ

প্রেস বিজ্ঞপ্তি

 মানবাধিকার সংস্কৃতি ফাউন্ডেশন (এমএসএফ) এর ক্ষোভ ও গভীর উদ্বেগ

লক্ষ্মীপুর জেলা কারাগারের মাদক মামলার অভিযুক্ত হাজতি মো. সায়েদ হোসেন, ১৬ মার্চ, ২০২২ তারিখ সকাল ১১টার দিকে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে অচেতন হয়ে পড়লে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরিবারের দাবি মো. সায়েদ হোসেনকে ষড়যন্ত্রমূলক গ্রেফতারের পর পুলিশের দাবিকৃত টাকা দিতে না পারায় থানা হাজতে বেদম মারধর ও নির্যাতন করা হয়। এ কারণেই গুরুতর অসুস্থ হয়ে সায়েদ মারা যান। পুলিশী নির্যাতন ও কারা হেফাজতে মো. সায়েদ হোসেনের মৃত্যুর ঘটনায় মানবাধিকার সংস্কৃতি ফাউন্ডেশন (এমএসএফ) ক্ষোভ ও গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করছে। পাশাপাশি অভিযোগটির সুষ্ঠূ তদন্ত নিশ্চিত করে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানাচ্ছে।

গণমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, ৬মার্চ, ২০২২ তারিখে লক্ষ্মীপুরের রায়পুর থেকে পেশায় রাজমিস্ত্রি মো. সায়েদ হোসেনসহ আরো কয়েকজনকে পুলিশ আটক করে। পরিবারের অভিযোগ পুলিশের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা সায়েদকে ছেড়ে দিতে দুই লাখ টাকা দাবি করে নচেত মাদক মামলায় চালান দেয়ার হুমকি দেয়। নিহত সায়েদের বাবা কাশেম জানান, পুলিশের দাবিকৃত টাকার বিষয়ে সমঝোতা না হওয়ায় সায়েদকে থানা হেফাজতে বেদম মারধর করা হয়। এরপর সায়েদকে রায়পুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। সায়েদের বাবা কাশেম আরো অভিযোগ করেন, টাকা না পেয়ে বেদম মারধর ও নির্যাতন করে সায়েদকে ৩০ পিস ইয়াবা দিয়ে আদালতে চালান দেয়া হয়। নির্যাতনে গুরুতর অসুস্থ হয়েই সায়েদ মারা গেছে। লক্ষ্মীপুর জেলা কারাগারের জেলার মো. সাখাওয়াত হোসেন জানান, সকালে সায়েদের বুকে ব্যথা ওঠার পর তিনি অসুস্থ ও অচেতন হয়ে পড়লে তাকে দ্রুত হাসপাতালে নেয়া হয়। সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. জয়নাল আবেদিন জানান, হাসপাতালে আনার পূর্বেই সায়েদের মৃত্যু হয়েছে।

মানবাধিকার সংস্কৃতি ফাউন্ডেশন (এমএসএফ) মনে করে, পুলিশের বিরুদ্ধে আনীত নির্যাতনের অভিযোগ ও পরবর্তীতে মামলা দেখিয়ে কারাগারে প্রেরণ সেই সাথে কারা হেফাজতে মৃত্যুর বিষয়টি অনাকাঙ্ক্ষিত ‍ও অনভিপ্রেত যা কখনোই গ্রহনযোগ্য হতে পারে না। এমএসএফ আরো মনে করে, আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর বিরুদ্ধে নির্যাতনের অভিযোগ ও পরবর্তীতে কারা হেফাজতে মৃত্যু বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা ফলে সায়েদের মৃত্যু যে ভাবেই হোক না কেনো বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে প্রকৃত ঘটনা উদঘাটনে অনতিবিলম্বে নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠূ তদন্ত নিশ্চিত করে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানাচ্ছে।

Please follow and like us:
Pin Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this:

Website Design, Developed & Hosted by ALL IT BD