তাড়াশ-রানীরহাট সড়কে ঝুঁকিপূর্ণ সেতু-কালভার্ট

গোলাম মোস্তফা : সিরাজগঞ্জের তাড়াশের খানাখন্দে বেহাল ১৬ কিলোমিটার রানীহাট সড়ক নতুন নির্মাণ করে চলাচলের উপযোগী করা হয়েছে গত বছরের শুরুর দিকে। একই সঙ্গে সড়কটি প্রসস্থ করা হয় বেশ খানিকটা। কিন্তু এই সড়কের ৩টি সরু কালভার্ট, ২টি সরু সেতু ও ১টি ক্ষতিগ্রস্থ সেতুর জন্য নির্বিঘেœ যান চলাচল করতে পারছেনা। বরং দুর্ঘটনার ঝূঁকি বেড়েছে বহুলাংশে।
জানা গেছে, রানীহাট সড়কটির অতি গুরুত্ব রয়েছে। বিশেষ করে সড়কটি নতুন নির্মাণ ও প্রসস্থ করার ফলে ঢাকা ও রাজশাহী মুখী দূর্পাল্লার অনেক যানবাহন এ সড়ক দিয়ে চলাচল করে সারাদিন ও রাতভর। তাছাড়া বগুড়া ও সিংড়া হয়ে নাটোর পর্যন্ত সংযোগ থাকার দরুণ সড়কটির এলাকাভিত্তিক যথেষ্ট গুরুত্ব রয়েছে। বর্তমানে এলেঙ্গা থেকে রংপুর চার লেনের নির্মাণ কাজ চলছে। সেজন্য যানজট এড়াতে অনেক গাড়ি রানীহাট সড়ক দিয়ে চলাচল করে। এরপর নাটোর, রাজশাহী ও বগুড়াতে চাকরিরত অনেক কর্মকর্তা এই সড়ক দিয়ে ব্যক্তিগত গাড়ি নিয়ে নিয়মিত অফিস করেন।
তাড়াশের তালম ইউনিয়ন পরিষদের ২ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ও তালম ইউনিয়নের বৃক্ষপালন সমিতির সভাপতি মো. গোলাম মোস্তফা বলেন, রানীহাট সড়কটির অচল অবস্থার সৃষ্টি হয়েছিলো। এরপর নতুন নির্মাণ ও প্রসস্থ করা হয়। ইতোমধ্যে দুটি সরু সেতুর স্থানে নতুন প্রসস্থ সেতু নির্মান করা হয়েছে। এখনো সড়কের ৩টি সরু কালভার্ট, ২টি সরু সেতু ও ১টি ক্ষতিগ্রস্থ সেতুর জন্য নির্বিঘেœ যান চলাচল করতে পারছেনা। এমনকি এসব কালভার্ট ও সেতুর উপর দিয়ে ১টি বাস ও ১টি ভ্যান একসাথে চলাচলের সময় দুর্ঘটনার ভয়ে অধিক সাবধানতা অবলম্বন করতে হয় চালকদের।
গতকাল বুধবার সকালে সরজমিনে দেখা যায়, রানীহাট সড়কের জামাতের বটতলা এলাকার সেতুটি সড়কের প্রসস্থের তুলনায় বেশ সরু। শুধু তাই নয়, সেতুটির পাটাতন ভেঙে গিয়েছিলো। তখন স্টিলের প্লেট দিয়ে জরুরি মেরামত করে তার উপর কার্পেটিং করা হয়। সেই কার্পেটিং উঠে স্টিলের প্লেটগুলোর নড়বড়ে অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। এরপর এই সড়কের বিনসাড়া বাজার এলাকায় ১টি সরু সেতু রয়েছে। আরেকটি সরু সেতু রয়েছে ধোপাগাড়ি বাজার এলাকাতে। চান্দের বাড়ির সামনে ১টি সরু কালভার্ট রয়েছে। ১টি সরু কালভার্ট রয়েছে পেঙ্গুয়ারি গ্রাম এলাকাতে। আরেকটি কালভার্ট রয়েছে মানিকচাপর বাজার এলাকাতে। কিন্তু বিনসাড়া বাজার এলাকার সেতুটি ও বেরখালি এলাকার সেতুটি ইতোমধ্যে নতুন নির্মাণ করে প্রসস্থ করা হয়েছে।
এ প্রসঙ্গে সিরাজগঞ্জ সড়ক ও জনপথ বিভাগের (সওজ) নির্বাহী প্রকৌশলী দিদারুল আলম তরফদার দৈনিক ইত্তেফাককে বলেন, চলতি বছরে রানীহাট সড়কের ১টি সরু সেতু ভেঙে নতুন প্রসস্থ সেতু নির্মাণ করা হবে। অন্যান্য কালভার্ট ও সেতুগুলোর দুর্ঘটনা এড়াতে গাইড পোষ্ট ও সাইন্ড সিংগন্যাল দেওয়া হবে। সর্বপরি ভবিষ্যতে সরু কালভার্ট ও সেতুগুলোর স্থানে নতুন প্রসস্থ সেতু নির্মাণ করা হবে।

Please follow and like us:
Pin Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this:

Website Design, Developed & Hosted by ALL IT BD